Muslim Actors & Directors Must Sign Affidavits That They Won’t Insult Hindu Gods: ABAP


 

নয়াদিল্লি: সিনেমার সঙ্গে যুক্ত সব মুসলিম অভিনেতা অভিনেত্রীদের লিখিতভাবে এফিডেভিট দিতে হবে যে তাঁরা দেবদেবীদের নিয়ে হাসি ঠাট্টা বা মস্করা করবেন না, তাঁদের অসম্মান হতে পারে এমন কোনও কাজ করবেন না। দাবি করল অখিল ভারতীয় আখড়া পরিষদ বা ABAP। মুসলিম ছবি পরিচালকদেরও একই এফিডেভিট দিতে হবে বলে দাবি করেছে তারা।

ABAP চেয়ারম্যান মহান্ত নরেন্দ্র গিরি একটি ভিডিও বার্তা প্রকাশ করেছেন। তিনি জানিয়েছেন, তাণ্ডব ওয়েব শোর অভিনেতা নির্মাতাদের তাঁরা ক্ষমা করবেন না, যতদিন না তাঁরা আর এ ধরনের কাজ করবেন না বলে এফিডেভিট জমা দিচ্ছেন। গিরি বলেছেন, পুলিশ মুম্বই গিয়ে পৌঁছনোর সঙ্গে সঙ্গে ক্ষমা চেয়েছে তাণ্ডব টিম। যদি একটি নির্দিষ্ট গোষ্ঠীর অভিনেতা অভিনেত্রী ও নির্মাতারা সত্যি সত্যি নিজেদের কৃতকর্মের জন্য দুঃখিত হন, তবে তাঁদের এ ব্যাপারে এফিডেভিট দেওয়া উচিত যে তাঁরা আর সনাতন ধর্মকে এবং হিন্দু দেবদেবীদের অসম্মান করবেন না।

গতকালই তাণ্ডব পরিচালক আলি আব্বাস জাফর এক বিবৃতি ইস্যু করে তাণ্ডব-এর বিতর্কিত দৃশ্যের জন্য ক্ষমা প্রার্থনা করেন। এটিই তাঁর পরিচালিত প্রথম ওয়েব সিরিজ। জাফর বলেছেন, যে সব দৃশ্য নিয়ে সমস্যা, সেগুলি তিনি সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের সঙ্গে কথা বলে শুধরে নেবেন। বিবৃতিতে বলা হয়েছে, কেন্দ্রীয় তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রক আমাদের জানিয়েছে, এই ওয়েব সিরিজের বিভিন্ন দৃশ্য নিয়ে বিশাল সংখ্যক আপত্তি ও পিটিশন জমা পড়েছে। এতে গুরুতর আপত্তি ও উদ্বেগের কথা রয়েছে, বলা হয়েছে, এই ওয়েব সিরিজের বিষয় মানুষের অনুভূতিকে আহত করছে।

সেফ আলি খান এবং ডিম্পল কাপাডিয়া অভিনীত ছবির বিরুদ্ধে হিন্দু ধর্মের মানহানি করার অভিযোগ ওঠে। সোশ্যাল মিডিয়ায় নেটিজেনদের একাংশের অভিযোগ ভগবান শিব এবং ভগবান রামকে অপমান করা হয়েছে। এই ছবি ব্যান করার জন্য তথ্য সম্প্রচার মন্ত্রী প্রকাশ জাভড়েকরের কাছে আবেদন জানিয়েছেন বিজেপি নেতা কপিল মিশ্র। পাশাপাশি বিজেপি বিধায়ক রাম কদমও এই ছবির বিরুদ্ধে মুখ খুলেছেন। তাঁর বক্তব্য ছবি বানাতে গিয়ে হিন্দু ধর্মের মানহানি করা নির্মাতাদের অভ্যাসে পরিণত হয়েছে। ধর্মীয় ভাবাবেগে আঘাত করার অভিযোগে হজরতগঞ্জ থানায় পরিচালক আলি আব্বাস জফর, লেখক গৌরব সোলাঙ্কি, প্রযোজক হিমাংশু কৃষ্ণা মেহরা এবং আমাজন প্রাইম ভিডিও-র ভারতের প্রধান অপর্ণা পুরোহিতের বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে।

Source link

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *