চাহলের বিরুদ্ধে জাতিবিদ্বেষী মন্তব্যের অভিযোগ, এফআইআর যুবরাজের বিরুদ্ধে

চাহলের বিরুদ্ধে জাতিবিদ্বেষী মন্তব্যের অভিযোগ এফআইআর যুবরাজের বিরুদ্ধে

নয়াদিল্লি:সোশ্যাল মিডিয়ায় সবসময়ই সক্রিয় থাকেন ভারতীয় দলের প্রাক্তন তারকা ক্রিকেটার যুবরাজ সিংহ। দীর্ঘদিন ধরেই ইনস্টাগ্রামে লাইভ সেশন করে থাকেন তিনি। করোনাভাইরাসজনিত কঠোর লকডাউনের সময়ও অন্যান্য ক্রিকেটারদের সঙ্গেও বেশ কতগুলি লাইভ সেশন করেছিলেন তিনি। 

এমনই একটি সেশন যুবরাজ করেছিলেন রোহিত শর্মার সঙ্গে। সেই সেশন চলাকালে তিনি স্পিনার যুজবেন্দ্র চাহল সম্পর্কে জাতিবিদ্বেষী মন্তব্য করেছিলেন বলে অভিযোগ। যে শব্দ যুবরাজ উচ্চারণ করেছিলেন, তা দলিত সম্প্রদায়ের প্রতি অবমাননাকর বলে অভিযোগ। এই ঘটনায় বিতর্কের জেরে ক্ষমাপ্রার্থনা করেছিলেন ২০১১-র বিশ্বকাপের ম্যান অফ দ্য টুর্নামেন্ট। 
এরপর আট মাস কেটে গিয়েছে। কিন্তু এতগুলি দিন পর তাঁর বিরুদ্ধে এই ঘটনায় এফআইআর দায়ের করল হরিয়ানা পুলিশ। হরিয়ানার হিসারের এক অ্যাডভোকেট ক্রিকেটারের বিরুদ্ধে এই ঘটনায় এফআইআর দায়ের করেছিলেন। যুবরাজের বিরুদ্ধে ভারতীয় দণ্ডবিধির ১৫৩,১৫৩ এ, ২৯৫,৫০৫ এবং এসসি ও এসটি আইনের ৩(১) (আর), ৩ (১) (এস) ধারায় অভিযোগ দায়ের হয়েছে। হিসারের হানসি থানায় এফআইআর দায়ের হয়েছে।

ওই বিতর্কিত লাইভ সেশনে যুবরাজ রোহিতের সঙ্গে চাহল ও অন্যান্য ক্রিকেটারদের সম্পর্কে আলোচনা করছিলেন।  ওই সময় পরিবারের সঙ্গে একটি ভিডিও করেছিলেন চাহল। সেই ভিডিও সম্পর্কে বলতে গিয়েই যুবরাজ ওই বিতর্কিত মন্তব্য করেছিলেন বলে অভিযোগ।  তিনি বলেছিলেন….. লোকেদের কোনও কাজ নেই, এই যুজি ও ওর (কুলদীপ)। এর উত্তেরে রোহিত মজার ছলে বলেছিলেন, আমি ওকে এটাই বলেছি যে, নিজের বাবাকে নাচাচ্ছিস, পাগল হয়ে যাসনি তো। 
দেখুন সেই কথপোকথন-

এই মন্তব্যের জন্য সোশ্যাল মিডিয়ায় তীব্র সমালোচনার মুখে পড়েন যুবরাজ। এ জন্য ক্ষমাপ্রার্থনা করেন তিনি। যুবরাজ লিখিতভাবে বলেছিলেন, আমি স্পষ্ট ব্যাখ্যা দিয়ে বলছি যে, আমি কোনও ধরনের বৈষম্যে বিশ্বাস করি না, তা সে জাতপাত হোক, বা বর্ণ বা লিঙ্গ , গোষ্ঠী। মানুষের কল্যাণে আমি নিজেকে নিয়োজিত করেছি এবং সারাজীবনই তাই-ই করব। আমি জীবনের প্রতি মর্যাদা, প্রত্যেককে শ্রদ্ধায় বিশ্বাসী। 
কিন্তু তাঁর ক্ষমাপ্রার্থনাতেও বরফ যে গলেনি তা স্পষ্ট হল। এবার তাঁর বিরুদ্ধে দায়ের হল এফআইআর। 

Source link

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *