Kaushani on Bony Sengupta: সরাসরি প্রশ্ন করব কেন এই সিদ্ধান্ত বনির, এক্সক্লুসিভ কৌশানি

কলকাতা: কর্মীসভা, রোড শো, জনসংযোগ, কৃষ্ণনগরে প্রচারে ব্যস্ত তৃণমূলপ্রার্থী কৌশানি মুখোপাধ্যায়। জানতেনই না বিরোধী দলে যোগদান করছেন বনি সেনগুপ্ত! নির্বাচনী কেন্দ্র থেকেই মোবাইল ফোনে এবিপি লাইভকে কৌশানি বললেন, ‘নতুন পদক্ষেপের জন্য বনিকে আমার শুভেচ্ছা। কলকাতা ফিরে সরাসরি প্রশ্ন করব ও কেন এই সিদ্ধান্ত নিল। আমার সেই অধিকার রয়েছে।’

বুধবার পদ্ম শিবিরে যোগদান করেছেন অভিনেতা বনি সেনগুপ্ত। ইন্ডাস্ট্রিতে কান পাতলেই শোনা যায়, কৌশানি-বনির প্রেমের সম্পর্কের কথা। শুধু তাই নয়, নিজে মুখে সম্পর্কের কথা মেনেও নিয়েছেন তাঁরা। টলিউডের অন্যতম হিট ততৃজুটির মধ্যে এবার রঙ লাগল রাজনীতির! কিছুদিন আগেই তৃণমূলে যোগদান করেছেন কৌশানি। দলের টিকিটে কৃষ্ণনগর থেকে পদপ্রার্থীও হয়েছেন তিনি। প্রেমিকা শহরের বাইরে, ব্যস্ত প্রচারে।  মা পিয়া সেনগুপ্তও রয়েছেন তৃণমূলের গুরুত্বপূর্ণ পদে। কিন্তু উল্টো পথে হাঁটলেন বনি।

গেরুয়া শিবিরে যোগদানের আগে কৌশানির সঙ্গে আলোচনা করেছিলেন বনি? কৌশানি বলছেন, আমি যখন তৃণমূল কংগ্রেসে যোগদান করেছিলাম সেটা ছিল সম্পূর্ণ ব্যেক্তিগত সিদ্ধান্ত। এটা ইন্ডাস্টির সবাই জানে আর আমার মতামতকে সম্মান করে। স্পষ্টভাবে একটা কথা বলতে চাই, কোনও সিদ্ধান্ত নেওয়ার আগে বাবা-মা ছাড়া কারোও মতামত আমি নিইনি। তাই বনিও কোনও সিদ্ধান্ত নেওয়ার আগে যে আমার মতামত নেবে না সেটাই স্বাভাবিক। জানতাম বনি বিজেপিতে যোগ দেওয়ার অফার পেয়েছে। কিন্তু তারপর কৃষ্ণনগর চলে আসি। এখানে এসে কাজে এতটাই ব্যস্ত হয়ে পড়েছি যে আমার সঙ্গে বনির কোনও কথা হয়নি।’

রাজনৈতির মঞ্চে নায়ক বনি সেনগুপ্তকে কখনও কল্পনা করতে পেরেছিলেন কৌশানি? নায়িকা বলছেন, আমার কাছে বনি একটা শান্ত, ঠান্ডা ছেলে। সে বিজেপির মঞ্চে দাঁড়িয়ে বড় বড় ভাষণ দেবে সেটা আমার কাছে অকল্পনীয়। আমি কেবল জানতাম বনি অফার পেয়েছে। কিন্তু ওর যোগদানের ইচ্ছা রয়েছে সে বিষয়ে কোনও কথা হয়নি। তবে আমরা সবাই একটা স্বাধীন দেশে বসবাস করি। সবার সেখানে নিজস্ব মতামত আছে। আমি ২ দিনের জন্য কলকাতা যাব। ফোনে এই নিয়ে আর কোনও কথা বলব না। বাড়ি গিয়ে বনির মুখোমুখি হয়ে জিজ্ঞাসা করব ও কেন এই সিদ্ধান্তটা নিল। কারণ আমার সেই অধিকার রয়েছে। তবে আমার আর বনির সম্পর্কটাকে আমি সম্মান করি। আশা করব সেটা সবাই করবে। কিন্তু আমরা বিবাহিত নয়।  বনির সিদ্ধান্ত সম্পূর্ণ ওর একার। এখানে আমার কোনও বক্তব্য নেই।’

যদি কৃষ্ণনগরে বিজেপির প্রার্থী হন বনি? কৌশানি বললেন, ‘বনি যদি আমার কেন্দ্রে বিজেপির হয়ে প্রচারে আসে বা নিজেও প্রার্থী হয়, তাহলেও আমার উত্তরটা স্পষ্ট হবে। যে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের বিরোধী সে আমারও বিরোধী। দিদি আমায় যে দায়িত্বটা দিয়েছেন সেটা আমি নিষ্ঠার সঙ্গে পালন করছি। সেখানে বনি সেনগুপ্তও আমার বিরোধী। রাজনীতি আর ব্যেক্তিগত জীবনের কোনও যোগ নেই।’

গতকাল নন্দীগ্রামে গিয়ে আহত হয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। আপাতত এসএসকেএম-এ চিকিৎসাধীন রয়েছেন তিনি। এই ঘটনাকে  ‘নির্বাচনের আগে রাজনৈতিক চক্রান্ত’ বলেই দাবি করছেন কৌশানি। সেইসঙ্গে তিনি বলেন, ‘মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের জন্যই আমরা লড়াইয়ের শক্তি পাই। আশা করব দিদি খুব তাড়াতাড়ি সুস্থ হয়ে আবার কাজের জগতে ফিরে যেতে পারবেন।’

 

Source link

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *